জন্মশতবর্ষ উদযাপন: করোনা আবহ এবং সত্যজিতের সিনেমার পোস্টার

বিবিধ ডট ইন: গত রবিবার ২ মে ছিল ভারতীয় চলচ্চিত্রের অন্যতম দিকপাল সত্যজিৎ রায়ের শত তম জন্মদিন।

আর এই জন্ম শতবর্ষকে কেন্দ্র করে ভারতবর্ষের কোভিড সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের ভয়াবহতার প্রতিচ্ছবি ভেসে উঠলো বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া তাঁরই নির্মিত কিছু বিখ্যাত সিনেমার পোস্টারে।

মুম্বাই নিবাসী জনৈক শিল্পী অনিকেত মিত্রের ক্যনভাসে ফুটে উঠলো অতিমারীর আবহে পথের পাঁচালি, দেবী, সীমাবদ্ধ, জন অরণ্য, নায়ক, অশনিসংকেত, নায়কের মত সত্যজিৎ পরিচালিত জনপ্রিয় সব বাংলা ছবির পোস্টারে বর্তমান টালমাটাল পরিস্থিতির প্রেক্ষাপট।

পথের পাঁচালি ছায়াছবির পোস্টারে দেখা যাচ্ছে একজন অ্যাম্বুলেন্স চালক পিপিই কিট পরিবৃত অবস্থায় নিজ কর্তব্যে অবিচল। আবার দেবী-র পোস্টারে দেখা যাচ্ছে একজন স্বাস্থ্যকর্মী সমস্তরকম সুরক্ষা বলয়ের মধ্যেই সদ্যজাত শিশুর সেবায় নিয়োজিত।

মহানগর ছবির পোস্টারে দেশে বিগত বেশ কিছুদিন ধরে চলে আসা অক্সিজেন সংকটের ভয়াবহ রূপ আবার সীমাবদ্ধ ছবির পোস্টারে ফেস শিল্ড মাস্ক পরিহিত পুলিশ কর্মীদের ফ্রন্ট লাইনে দাঁড়িয়ে লড়াই করার দৃশ্য, এমনি সব বর্তমান সামাজিক প্রেক্ষাপট ফুটে উঠেছে শিল্পীর ক্যানভাসে।

এ বিষয়ে অনিকেত মিত্রে জানান,

একটা কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে বয়ে চলছে জীবন নদী। স্রোতের বিপরীতে বইতে থাকা নৌকায় ক্রমাগত আলোড়ন। একে একে সহযাত্রীরা মিলিয়ে যাচ্ছে গাঢ় কুয়াশায়। তবুও একটা ক্ষীণ আশার আলো আমরা খোঁজার চেষ্টা করে চলেছি। একটু ভালো থাকা, একটা ভালো খবর আজকের দিনে দুষ্কর। বলা ভালো এখন নিঃশ্বাসের দাম দিতে হয়। এমন একটা সময়ে একজন মানুষের জন্মশতবার্ষিকী। মানবিক নিয়ম অনুযায়ী এই সময় উচিত সমাজের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলির আলোচনা। উদযাপনের সময় নয় এটা। তারপর মনে হলো, একজন মানুষ যে শৈশবে পিতৃহীন হয়, কঠিন লড়াইয়ের মাধ্যমে তিলে তিলে গড়ে তোলেন এক বিপুল সাম্রাজ্য, যার প্রতিটা সৃষ্টি বিশ্বের দরবারে বাঙালিকে শ্রেষ্ঠত্বের আসনে বসিয়েছে, তাঁর জন্মদিনে চুপ করে থাকার অর্থ জীবনযুদ্ধকে স্বীকৃতি না দেওয়া। এ এক জিতে যাওয়ার গল্প। এক স্বপ্নের ফেরিওয়ালার গল্প। যখন এই কথা গুলো বলছি, মোবাইলে একের পর এক নোটিফিকেশন ঢুকছে। মানুষ বড় অসহায় আজ। তাই সাধারণ মানুষের লড়াইয়ের গল্পে আজ মিশিয়ে দিলাম আরেকজনের জিতে যাওয়ার গল্প। হয়তো মনে একটু সাহস জোগাতে পারে। সত্যজিৎ রায়ের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে আমার শ্রদ্ধাঞ্জলী।

লিখেছেন সায়ন্তন মন্ডল 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *