বানিয়েছেন মন্দির, ১৯ বছর ধরে পুজো করছেন এই মুসলিম ব্যক্তি

এখনই শেয়ার করুন

বিবিধ ডট ইনকেরালার ৬৫ বছরের এক মুসলিম ব্যক্তি কোরাগজ্জা মন্দির তৈরি করেন এবং গত দু’দশক ধরে তিনি পুজো করছেন সেই মন্দিরে।  দক্ষিণ কন্নড় জেলার মুল্কির কাছে কাবাথারু গ্রাম থেকে এমনই সাম্প্রদায়িক বার্তা দিচ্ছেন তিনি।

কেরলের পলক্কাদ জেলার চিত্তলঞ্চেরি গ্রামের বাসিন্দা, পি কাসিম সাহেব প্রায় ৩৫ বছর আগে চাকরির সন্ধানে সপরিবারে কর্ণাটক এসেছিলেন। কাবাথারুতে বসবাস শুরু করেন সেই থেকে।

সঙ্গে থাকুন। ফলো করুন আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ:

স্ত্রী এবং পাঁচ সন্তানের সংসার কোনওমতে চলছিল কাসিম সাহেবের। এরই মধ্যে একদিন তিনি পায়ে চোট পান। এরপরই স্থানীয় এক পুরোহিতের পরামর্শে কোরাগজ্জা মন্দির নির্মাণ করেন নিজের জমিতে।এই প্রসঙ্গে কাসিম সাহেব বলেন, ‘খানিক আতান্তরেই কাটছিল আমাদের সংসার। নানা সমস্যায় জর্জরিত হয়ে পড়ি। এরকম সময় আমাকে এখানের এক পুরোহিত জানান, আমার যেখানে বাড়ি, সেখানে আগে কোরাগজ্জার পুজো হতো।’

এরপরই নিজে মন্দির বানিয়েছেন কাসিম সাহেব। তাঁর বাড়ি থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বেই সেই মন্দির।

কাসিম সাহেব বলেন, প্রতিদিন প্রায় ৫০ জন বিভিন্ন ধর্মাবলম্বী মানুষ কোরাগজ্জা মন্দিরে পুজো দিতে আসেন। প্রচলিত রীতি মেনেই চলে পুজো। ভক্ত সমাগমের পাশাপাশি সংস্কার মেনে দু’বছর অন্তর বিশেষ উৎসবের আয়োজনও করেন বলে সংবাদসূত্রে জানা গেছে।

এখন বলে নয়, গত ১৯ বছর ধরে একইভাবে পুজো করে চলেছেন কাসিম সাহেব। মন্দিরে আগত দর্শনার্থীদের মধ্যে প্রসাদও বিতরণ করেন।

কাসিম সাহেব জানান, তাঁর ছেলেমেয়েরা মসজিদে যায়। তার পাশাপাশি কোরাগজ্জা এবং অন্যান্য হিন্দু দেবদেবীর প্রতিও তাদের আস্থা রয়েছে। বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে কাসিম সাহেব যে সম্প্রীতির এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত, বলা বাহুল্য।

লিখেছেন শ্রেয়া দাস


এখনই শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *