করোনা পরীক্ষা করাতে গিয়ে হেনস্থার শিকার মানবী বন্দ্যোপাধ্যায়

 

বিবিধ ডট ইন: শুধুমাত্র ট্রান্স নারী বলে তাঁর করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে না এমনই গুরুতর অভিযোগ করলেন ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্রান্সজেন্ডার বোর্ডের-সহ সভাপতি মানবী বন্দ্যোপাধ্যায়। ঢোলা মহাবিদ্যালয়ের অধ্যাপিকা মানবী জানান গত শনিবার এম আর বাঙ্গুর হাসপাতালে করোনা পরীক্ষা করাতে গিয়ে হেনস্তার শিকার হন তিনি।

বেশ কিছুদিন অসুস্থ রয়েছেন মানবী। জ্বর সহ করোনার একাধিক উপসর্গ রয়েছে তাঁর। সেই কারনেই গত শনিবার স্বামী-কে সঙ্গে নিয়ে এম আর বাঙ্গুর হাসপাতালে আরটিপিসিআর টেস্ট করাতে যান তিনি। অভিযোগ, মানবীর স্বামীর করোনা টেস্ট হলেও তাঁর টেস্ট করা হয়নি। উলটে এক মহিলা নিরাপত্তাকর্মী তাঁকে হেনস্তা করেন তাঁকে। এ বিষয়ে তিনি ইতিমধ্যেই দারস্থ হয়েছেন নারী এবং শিশু কল্যান বোর্ড এবং ওয়েস্টবেঙ্গল ট্রান্সজেন্ডার বোর্ডের।
এ প্রসঙ্গে মানবী জানান,

আমার বয়স হয়েছে। বিভিন্ন উপসর্গ আছে। তাই টেস্ট করতে যাই। কিন্তু টেস্ট না করেই ফিরে আসতে হয়েছে। গোটা বিষয়টি নারী ও শিশুকল্যাণ দপ্তর এবং ওয়েস্টবেঙ্গল ট্রান্সজেন্ডার বোর্ডকে জানিয়েছি।

যদিও এই অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, এমনটাই দাবী করেছেন এম আর বাঙুর হাসপাতালের সুপার ডা শিশির নস্কর। তিনি বলেন,

উনি যখন খুশি এসে পরীক্ষা করাতে পারেন। কোনও একটা ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। উনি যে অভিযোগ করেছেন তা অনভিপ্রেত।

লিখেছেন সায়ন্তন মন্ডল

হ্যালো! আপনার মতামত আমাদের কাছে মূল্যবান

%d bloggers like this: