স্ত্রীর চিতায় ঝাঁপ দিয়ে ‘সহমরণ’ স্বামীর!

 

বিবিধ ডট ইন: ভালোবাসার অমোঘ টানের কোনও কাহিনী নাকি অন্ধকারময় সহমরণের যুগের উলটপূরান? গত ২৪ আগস্ট উড়িষ্যার কালাহান্ডির একটি ঘটনা যেন মনে করিয়ে দিল মৃত স্বামীর চিতায় জীবিত স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার সহমরণ রীতির কথা।

আরও পড়ুন: পুলওয়ামা কাণ্ডের মূল চক্রী এখনও জীবিত? চাঞ্চল্যকর দাবি গোয়েন্দাদের

ওড়িশার কালাহাণ্ডির গোলামুণ্ডা ব্লকের বাসিন্দা ৫৭ বছর বয়সী রায়বতী সবর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তাঁর স্বামী, স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য বছর ষাটেকের নীলমনি সবর শোকে কাতর হয়ে ঝাঁপ দেন স্ত্রীর জ্বলন্ত চিতায়। আত্মীয়-স্বজনরা তাকে ওই জ্বলন্ত চিতা থেকে উদ্ধার করলেও মারাত্মকভাবে অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন তিনি। গতকাল তাঁর মৃত্যু হয় হাসপাতালে।

আরও পড়ুন: ২২ বছরের কেরিয়ারে ইতি! WWE-কে বিদায় জানালেন জন সিনা

অবাস্তব শোনালেও হয়তো ভালোবাসার মানুষকে একলা ছেড়ে দিতে তাঁর মন চায়নি একেবারেই। সে কারণেই হয়তো প্রিয়াত্মার সঙ্গে পরপারে যেতে চেয়েছিলেন স্বামী। আপাতত ভালোবাসার এই অমোঘ টানের নজিরবিহীন কাহিনী এখন মুখে মুখে ফিরছে কালাহান্ডির বাসিন্দাদের মুখে মুখে।

লিখেছেন সায়ন্তন মন্ডল

One thought on “স্ত্রীর চিতায় ঝাঁপ দিয়ে ‘সহমরণ’ স্বামীর!

হ্যালো! আপনার মতামত আমাদের কাছে মূল্যবান

%d bloggers like this: