আরও সস্তায় শীতাতপনিয়ন্ত্রিত ট্রেন! যাত্রা শুরু এসি-থ্রি ইকনমি ক্লাসের

 

বিবিধ ডট ইন: এবার আরও সস্তায় আপনিও উপভোগ করতে পারেন এসি ট্রেনের সফর। ২৯ অক্টোবর থেকেই শুরু হচ্ছে তুলনায় সস্তা এসি-থ্রি ইকোনমি ক্লাসের যাত্রা। রাজধানী দিল্লির আনন্দবিহার স্টেশন থেকে বিহারের পাটনা অবধি মিলবে এই ট্রেন পরিষেবা, যার ভাড়া এসি-থ্রির তুলনায় ৮% কম বলেই দাবী ভারতীয় রেলের তরফে।

ভারতীয় রেলের ‘ফেস্টিভ্যাল স্পেশাল’ ট্রেন হিসেবে চালু হচ্ছে এই ট্রেন পরিষেবা। দিল্লির আনন্দবিহার স্টেশন থেকে এই ট্রেনটি রাত ১১.১০ মিনিটে রওনা হয়ে পরের দিন বেলা ৩ টে ১৪ মিনিটে পাটনায় পৌঁছবে। এবং পাটনা থেকে বিকেল ৫.৪৫ এ রওনা হয়ে পরেরদিন সকাল ০৯.৫০ এ আনন্দবিহার স্টেশনে পৌঁছবে ফেস্টিভ্যাল স্পেশাল ট্রেনটি। চলতি পথে কানপুর, প্রয়াগরাজ, বারাণসী, দিনদয়াল উপাধ্যায় এবং দানাপুরের মতন স্টেশনে থামবে ট্রেনটি।

প্রসঙ্গত, কপুরথালা রেল কোচ কারখানায় এসি থ্রি টায়ারের ইকোনমি ক্লাসের কিছু কোচ তৈরি করা হয়েছে। এই কোচগুলি দেশের আলাদা আলাদা রেলওয়ে জোনকে পাঠানোও হয়েছে। ফেস্টিভ্যাল স্পেশাল ট্রেনের এসি-থ্রি রর ইকোনমির ৮০০ কোচ তৈরি করতে চলেছে ভারতীয় রেল। এর মধ্যে ৩০০ কোচ ইন্টিগ্রাল কোচ ফ্যাক্টরি চেন্নাই, ২৮৫টি কোচ মডার্ণ কোচ ফ্যাক্টরি রায়বেরিলি এবং ১৭৭টি কোচ কপুরথালা ফ্যাক্টরিতে তৈরি করা হবে।

সামনেই দীপাবলী আর ছটপুজোর আসতে চলেছে। তার আগেই বিহারবাসীদের জন্য উপহার দিল রেল। গতি শক্তি এক্সপ্রেসকে এই ফ্যাস্টিভ্যাল স্পেশাল ট্রেনের তালিকায় রাখা হয়েছে পরীক্ষা নিরিক্ষার জন্য। যদি উৎসবের মধ্যে এই ইকোনমি ক্লাসের ট্রেন সফল হয়, তাহলে আগামী দিনে দূরপাল্লার ট্রেন হিসেবে সাধারণ মানুষের কাছে এই ট্রেনটির গ্রহণযোগ্যতা বাড়তে পারে।

হ্যালো! আপনার মতামত আমাদের কাছে মূল্যবান

%d bloggers like this: