নাম বদলাচ্ছে না ফেসবুক অ্যাপের!

 

বিবিধ ডট ইন: সম্প্রতি জনপ্রিয় স্যোসাল মিডিয়া মাধ্যম ফেসবুক ও WhatsApp বিকল হয়ে যায় প্রযুক্তিগত কারণে যার ফলে একপ্রকার শিরোনামে এসেছিল মার্ক জাকারবার্গ পরিচালিত এই স্যোসাল মিডিয়া প্লাটফর্ম। পূর্ব ঘোষিত কথা অনুযায়ী ফেসবুক অথোরিটি কর্তৃপক্ষের নতুন নামকরন হয়েছে মেটা, যার ঘোষণা করেছেন কর্ণধার মার্ক জাকারবার্গ স্বয়ং। ইতিমধ্যেই নেটদুনিয়ায় আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু, জনপ্রিয় স্যোসাল মিডিয়া সাইট ফেসবুকের নাকি নাম পাল্টে মেটা হয়েছে। যা আদেও সঠিক নয়।

জনপ্রিয় স্যোসাল মিডিয়া সংস্থা ফেসবুকের অন্তর্ভুক্ত রয়েছে ফেসবুক সহ WhatsApp, ইন্সটাগ্রাম সহ একাধিক স্যোসাল মিডিয়া সাইট। অনেকের মতে সেই কারণেই কোম্পানির নাম বদলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যদিও সংস্থার নাম পরিবর্তন হলেও, ফেসবুক সাইটের নাম একই রয়েছে।

সংস্থার অধীনে যেহেতু এখন ইনস্টাগ্রাম, WhatsApp-এর মতো একাধিক প্ল্যাটফর্ম রয়েছে, তাই সংস্থার নাম ফেসবুক হওয়া বাঞ্ছনীয় নয় বলেই মনে করেছেন উচ্চপদস্থ কর্তারা। ঠিক যেমন গুগলের ক্ষেত্রে মূল সংস্থার নাম হিসেবে রয়েছে গুগল আলফাবেট, সে ভাবেই নাম বদলালো ফেসবুক কোম্পানির নাম, নতুন নাম হয়েছে মেটা। গত ২৮ অক্টোবরে সংস্থার একটি কনফারেন্সের পর মার্কিন সংবাদমাধ্যম দ্য ভার্জ-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, সেই বৈঠকেই নতুন নামের বিষয়ে আলোচনা করার পর ফেসবুকের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার তথা প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ সংস্থার নতুন নামকরণ করলেন মেটা। অর্থাৎ ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম এবং হোয়াটসঅ্যাপের মতো স্বতন্ত্র প্ল্যাটফর্মগুলোর কোন নাম পরিবর্তন হচ্ছে না। নাম বদলাবে শুধুমাত্র তাদের মালিকানাধীন মূল কোম্পানির, যার নাম মেটা।

আসলে মার্ক জাকারবার্গ মেটাভার্স নামের এক নতুন নেট দুনিয়া বানানোর স্বপ্ন দেখছেন, যেখানে মানুষ ভার্চুয়াল পরিবেশে ভিআর হেডসেট ব্যবহার করে বিভিন্ন কাজ করতে পারবেন সেই সাথে থাকছে বিনোদনের ঢালাও বন্দোবস্ত। তারই ফলশ্রুতি, নাম বলদালো ফেসবুকের মালিকানাধীন কোম্পানির।

হ্যালো! আপনার মতামত আমাদের কাছে মূল্যবান

%d bloggers like this: