পাশবিক! ডেনমার্কে ‘ডলফিন মারার উৎসব’, মৃত ১৪০০

 

বিবিধ ডট ইন: পাশবিকতার অন্যতম নজির সৃষ্টি করলো ডেনমার্ক সরকার। গত মঙ্গলবার একপ্রকার সরকারি উদ্যোগে সেদেশে মেরে ফেলা হল প্রায় ১৪০০ ডলফিন যা মানুষের ‘বন্ধু’ প্রাণী হিসেবেই পরিচিত। নেট দুনিয়ায় ভাইরাল ছবি দেখে নিন্দায় সরব হয়েছেন নেটিজেনরা।

যদিও ডেনমার্কের এক সরকারি মুখপাত্র দাবী করেছেন, উত্তর আটলান্টিকের দ্বীপ গুলিতে সামুদ্রিক তিমি শিকারের প্রাচীন ঐতিহ্য রয়েছে, সেই ঐতিহ্য মেনেই এ কাজ করা হয়েছে।

তিমি শিকারের ইতিহাস সম্বন্ধে বিস্তারিত বর্ণনা বিভিন্ন সুত্রে পাওয়া গেলেও ডলফিন হত্যার কোনও রেওয়াজের উল্লেখ পাওয়া যায়নি কোথাও, আর তাতেই সৃষ্টি হয়েছে বিতর্ক। সরকারি বিবৃতিতে চারদিক থেকে ডলফিনদের ঘিরে ধরে কীভাবে হত্যালীলা চালানো হয়েছে তার বর্ণনাও দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনায় চটেছেন সে দেশের সাধারণ নাগরিকরাও। মানুষের বন্ধু হিসেবেই পরিচিত ডলফিনের বুদ্ধিমত্তা প্রচুর। বর্তমানে বিভিন্ন দুষণের কারণে ক্রমে বিলুপ্তির পথে এই প্রানীটি, এহেন পরিস্থিতিতে ডেনমার্কের এই ঘটনায় নিন্দায় সরব সারা বিশ্ব। প্রসঙ্গত, ঐতিহ্য মেনে এই দ্বীপে প্রতিবছর ৬০০ তিমি কে অকারণে হত্যা করা হয়। এই রেওয়াজ চলতে থাকলে জীববৈচিত্র্যে এর যথেষ্ট কুপ্রভাব পড়বে বলেই মত বিশেষজ্ঞদের।

হ্যালো! আপনার মতামত আমাদের কাছে মূল্যবান

%d bloggers like this: