বাড়ছে সংক্রমণ, ‘হল্লা গাড়ি অভিযান’ বন্ধের সিদ্ধান্ত সৌরভের

বিবিধ ডট ইন:   ২০১২-এর বিধানসভা মহারণ ঘোষণা হবার আগে থেকেই ব্রিগেড সমাবেশের প্রচারকে কেন্দ্র করে সাধারণ মানুষের সাথে জনসংযোগ গড়ে তোলার ক্ষেত্রে বারম্বার নতুনত্বের ছোঁয়া দেখা গেছে বামেদের প্রচারে।

কখনও সঙ্গীত শিল্পী সৌমিক দাসের পলিটিক্যাল স্যাটায়ার, কখনও বামমনস্ক গীতিকার আকাশ চক্রবর্তীর একাধিক গান, আবার কখনও বা নাট্যকর্মী জয়রাজ ভট্টাচার্যের উদ্যোগে ইউরোপীয় কায়দায় ফ্লাশ-মব বামেদের প্রচারের অন্যতম হাতিয়ার হয়ে উঠেছিল।

সঙ্গে থাকুন। ফলো করুন আমাদের ফেসবুক পেজ:

একুশের নির্বাচনী নির্ঘন্ট প্রকাশিত হবার পর থেকেই নিত্যনতুন প্রচারের তালিকায় নবতম সংযোজন ছিল নাট্য পরিচালক সৌরভ পালোধীর উদ্যোগে হল্লা গাড়ি। ১৭ মার্চ থেকে ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত বিভিন্ন বিধানসভা কেন্দ্রে মোট ১২০টা শো করেছেন তাঁরা।

সম্প্রতি ক্রমবর্ধমান কোভিড পরিস্থিতিতে প্রচারের ক্ষেত্রে সমস্ত রকম বড় জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে সংযুত মোর্চার নেতৃত্বের তরফে। আর তার পরেই হাল্লা গাড়ির অভিযান বন্ধের সিদ্ধান্ত নিলেন উদ্যোক্তা সৌরভ পালোধী।

তিনি জানিয়েছেন, ‘সংযুক্ত মোর্চা-র জয়ের জন্যই আমাদের প্রচার। আমরা যারা রাস্তায় থিয়েটার করে মানুষের কাছে পৌঁছনোর চেষ্টা করছি তাদের মানুষ এতোটা আপন করে নেবেন ভাবিনি, ভাবিনি এতোটা আবেগ দিয়ে বরণ করে নেবে গোটা বাংলা। এরমধ্যেই আবার দাপট বেড়েছে করোনার। মানুষের জন্য ভোট, মানুষের কাছে পৌঁছনোর প্রচার, মানুষের জন্যই বামপন্থা। পার্টি-র গাইডলাইন বড়ো জমায়েত করা যাবে না, আর আমাদের পারফর্মেন্সটাই মানুষকে একসাথে নিয়ে। পার্টির গাইডলাইন আমরা অমান্য করছি না। ওই মানুষের জন্য বামপন্থা, তাই মানুষকে বিপদে ফেলে আমরা হল্লা গাড়ি আগামীকাল থেকে করব না সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এই দায়িত্ববোধটা বামপন্থাই শিখিয়েছে।’

হল্লা গাড়ির পারফর্মেন্স-এর জন্য গচ্ছিত তহবিল তুলে দেওয়া হবে সংযুক্ত মোর্চা প্রার্থীদের হাতে। তা কাজে লাগানো হবে নির্বাচনের কাজে৷ এই মর্মে সৌরভ বলেন,

‘কয়েকদিন আগে আমরা হল্লা গাড়ি-র জন্য কিছু পাবলিক ফান্ড কালেক্ট করেছিলাম, জানিয়েছিলাম যে টাকা আমাদের হল্লা গাড়ি-র কাজে লাগবে না, সেই টাকা আমরা সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থীদের ভোটের জন্য দেবো। সেই কাজ শেষের দিকে, সম্পূর্ণ হলে আমরা পূর্ণ তালিকা প্রকাশ করব।’

লিখেছেন সায়ন্তন মণ্ডল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *