ক্রেতার অভাবে ভারত পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন বিক্রির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার কেন্দ্রের

 

বিবিধ ডট ইন: দীর্ঘ দিন ধরে বিপিসিএলের পুরো অংশীদারি (৫২.৯৮%) বেসরকারি সংস্থাকে বেচতে চাইছে সরকার। কিন্তু সংশ্লিষ্ট মহলের দাবি, বিষয়টি রদ করা ছাড়া কোনও পথ ছিল না কেন্দ্রের কাছে। কারণ, এখন জ্বালানির বাজার অনিশ্চিত। বিশ্ব বাজার থেকে চড়া দামে অশোধিত তেল কিনতে নাভিশ্বাস উঠছে তেল সংস্থাগুলির। দেশেও দাম মাত্রাছাড়া। মানুষ মরিয়া হয়ে বিকল্প জ্বালানি খুঁজছে। শেয়ার বাজারও অস্থির। সব মিলিয়ে বিপদ আঁচ করেই বিপিসিএল কেনার জন্য তিনটির মধ্যে দু’টি আগ্রহপত্রদাতাই পিছিয়ে গিয়েছে। কেন্দ্রের ইঙ্গিত, পরে সময়-সুযোগ দেখে সিদ্ধান্ত হবে।

সম্প্রতি রাষ্ট্রায়ত্ত হেলিকপ্টার সংস্থা পবন হংসকে বিক্রির উদ্যোগ স্থগিত হয়েছে। এ বার রাষ্ট্রায়ত্ত তেল সংস্থা ভারত পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন (বিপিসিএল) বিক্রির সিদ্ধান্ত আপাতত প্রত্যাহার করল কেন্দ্র। তাদের দাবি, যারা আগ্রহপত্র দিয়েছিল তাদের বেশিরভাগই এখন বিশ্ব জুড়ে জ্বালানির বাজারের উদ্বেগজনক পরিস্থিতির মধ্যে দাঁড়িয়ে আর সংস্থাটি কেনার দৌড়ে অংশ নিতে চাইছে না।

কেন্দ্রীয় লগ্নি ও সরকারি সম্পত্তি পরিচালনা বিভাগ (দীপম) জানিয়েছে, কোভিড এবং ভূ-রাজনৈতিক পরিস্থিতি বিশ্ব জুড়ে শিল্পের পরিস্থিতি খারাপ করেছে, বিশেষত তেল-গ্যাস সংস্থাগুলির। ফলে এক সময়কার বিপিসিএলে আগ্রহীরা এখন বিলগ্নির প্রক্রিয়া থেকে দূরে থাকতে চাইছে। তাই মন্ত্রিগোষ্ঠী আগ্রহপত্রের প্রক্রিয়াটিই বন্ধ করছে। যে কটি জমা পড়েছে, সেগুলিও বাতিল।

উল্লেখ্য, বিপিসিএল কেনার জন্য আগ্রহপত্র চাওয়া হয়েছিল ২০২০-র মার্চে। পরে করোনার জন্য একাধিক বার সময়সীমা বাড়ানো হয়। ক্যালকাটা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রাক্তন সভাপতি কমল পারেখ বলেন, ‘মূল্যবৃদ্ধি ও রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের জেরে বিশ্ব বাজারে পেট্রোলিয়ামের দামের ভবিষ্যৎ চূড়ান্ত অনিশ্চিত। তেল সংস্থাগুলির হাল নিয়েও উদ্বেগ আছে। ক্রেতা পাওয়া এখন কঠিন।’

হ্যালো! আপনার মতামত আমাদের কাছে মূল্যবান

%d bloggers like this: