প্লাস্টিক দূষণরোধে নয়া উদ্ভাবন তথ্যচিত্র নির্মাতা অ্যাটেনবোরোর

এখনই শেয়ার করুন

বিবিধ ডট ইন: সারা বিশ্বে নানান সমস্যার মতই পরিবেশ দূষণ একটি খুবই বড় সমস্যা। প্লাস্টিক দূষণ তার মধ্যে অন্যতম। আমাদের ব্যবহার করা প্লাস্টিক নদী বা সমুদ্রে গিয়ে মেশে এবং পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট করে, যা আমরা ছোটবেলা থেকেই জেনে আসছি।

ক্রমেই দূষণের মাত্রা ভয়াবহ হচ্ছে। সেই আশঙ্কা থেকেই মুক্তির জন্য ইংল্যান্ডে প্লাস্টিক বর্জ্য থেকে পুনর্ব‍্যবহার যোগ্য পদার্থ তৈরির প্ল্যান্ট তৈরি হচ্ছে। যেখানে উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

সঙ্গে থাকুন। ফলো করুন আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ:

সম্প্রতি বিশ্ব বিখ্যাত ম্যাগাজিন ফোর্বস একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে, যেখানে তথ্যচিত্র নির্মাতা ডেভিড অ্যাটেনবোরো এবং পরিবেশবিদরা বুঝিয়েছেন যে, উচ্চতাপে স্টিম চালিয়ে মনোমার (monomers) গঠনকারী রাসায়নিক বন্ড গুলি ভাঙা হবে এবং তা পুনরায় ব্যবহারযোগ্যও হবে। তারা এই নতুন প্ল্যান্ট নিয়ে খুবই আশাবাদী।

এই প্রক্রিয়াকে বলা হয় হাইড্রোপিআরএস। এই প্রক্রিয়াটি বিশেষ কার্যকরী। কারণ এই প্রক্রিয়ায় মাটিতে ফেলে দেওয়া বা পুড়িয়ে ফেলা প্লাস্টিক বর্জ্য এমনকী, চিকিৎসা ক্ষেত্রে ব্যবহৃত প্লাস্টিককেও পুনর্ব‍্যবহারযোগ্য করা সম্ভব হবে। এই প্রক্রিয়ায় যে সব তেল বা নতুন রাসায়নিক পদার্থ পাওয়া যায়, তা পুনরায় বিক্রি বা নতুন কোনও পদার্থ তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।

বর্তমানে সারা বিশ্বেই গুচ্ছের প্রযুক্তি বেরিয়েছে যার মাধ্যমে রিসাইক্লিং করা হয়। এমনকী, সমুদ্র বা নদী থেকে বর্জ্য নিষ্কাশনের ব্যবস্থাও রয়েছে।

ইউনাইটেড কিংডমের খাদ্য ও পরিবেশ বিভাগের এক অধিকর্তা রেবেকা জানিয়েছেন যে, ‘

যেসব প্লাস্টিক বা প্লাস্টিক বর্জ্য পরিবেশ দূষণ করছে তা ফেলে দেওয়ার থেকে কীভাবে পুনরায় ব্যবহার করা যায় সেদিকে সরকার মনোনিবেশ করছে। এইসমস্ত ক্ষেত্রে সরকার আর্থিক বিনিয়োগের কথাও ভাবছে।’

সর্বোপরি মানুষের মধ্যে পরিবেশ এবং পরিবেশ দূষণ নিয়ে আরও সচেতনতা বাড়াতে হবে। এদিক থেকেও এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাচ্ছে সর্বস্তরের মানুষ।

লিখেছেন সোহম হাটুয়া


এখনই শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *