যেন কলকাতারই মেয়ে! সুরের অলিগলি পথ বেয়ে সুরসাম্রাজ্ঞী বেগম আখতার

 

কলকাতা নাকি ভালোবাসার শহর, শুধু তাই না!
ভারতবর্ষের একমাত্র সংগীতের শহর এই কলকাতা। নিজের স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্য নিয়ে মাএ
তেরো বছর বয়সে মা মুশতারি বাঈয়ের হাত ধরে কলকাতায় এসেছিলেন। গুরু উস্তাদ জিরো পরামর্শ মতো আখতারির মা-ও ভেবেছিলেন কলকাতার এই অনুকূল পরিবেশ মেয়ের সংগীতশিক্ষা ও প্রতিভাবিকাশের জন্য সহায়ক হবে। কলকাতা তথা বাঙালি পরিবেশের সঙ্গে সুন্দরভাবে মানিয়ে নিয়েছিলেন বেগম আখতার।
জন্মনাম আখতারি বাঈ ফৈজাবাদি পরবর্তীকালে হয়ে উঠেছিলেন হিন্দুস্তানি শাস্ত্রীয় সংগীতের গজল, দাদরা ও ঠুমরি গোত্রের জননী। এছাড়াও
গানের সুর আর গায়কি আঁকা আছে, তা হল — ‘জোছনা করেছে আড়ি’। বেগম আখতার যখন গেয়ে ওঠেন, “গলি দিয়ে চলে যায়/ লুটিয়ে রুপোলি শাড়ি/ চেয়ে চেয়ে পথ তারই,/ হিয়া মোর হয় ভারি/ রূপের মধুর মোহ,/ বলোনা কী করে ছাড়ি’। যা বাঙালির হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছে,
এই গায়কির জন্য পেয়েছিলেন বিশেষ উপাধি – ‘গজলের রানি’। যা এক কালজয়ী সৃষ্টি
বাংলা গানের ইতিহাসে, ‘জোছনা করেছে আড়ি’। গান গেয়েছেন বেগম আখতার, কথা ও সুর দিচ্ছেন রবি গুহ মজুমদার। এর সাথে আছে বাঙালির হৃদয়ে দাগ কেটে নিয়েছে ‘জোছনা করেছে আড়ি’, ‘পিয়া ভোলো অভিমান’, ‘কোয়েলিয়া গান থামা’। আবার একইসঙ্গে ‘আই মোহাব্বত’, ‘উয়ো যো হাম মে তুম মে’ অথবা মির্জা গালিব রচিত ‘ইয়ে না থি হামারি কিসমৎ’ বাঙালির কাছে কোনোদিনই পুরোনো হবে না। এই গান এখনও ৮ থেকে ৮০ সবার মন ছুঁয়ে যায়। শুধুই গান নাকি, তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাহিত্যকে আশ্রয় করে সত্যজিৎ রায়ের ‘জলসাঘর’ চলচ্চিত্রের সেই গানের মায়াবি মাদকতায় আজও আমাদেরকে আচ্ছন্ন করেছে। সত্যজিৎ রায়ের অনুরোধ ফেলতে না পেরে সেই চলচ্চিত্রে ছিল দুর্গাবাঈ-এর চরিত্রে অভিনয় করা বেগম আখতার। সেই প্লটের সিনে ছিল জমিদার বিশ্বম্বর রায়ের ছেলের উপনয়নের সেই সন্ধে। জলসাঘরে গানের আসরে দুর্গাবাঈ ধরলেন পিলু ঠুমরি। ‘ভরি ভরি আয়ি মোরি আঁখিয়া’। সুরকার উস্তাদ বিলায়েত খাঁ সাহেব।
আহাহা সে কি সুর ! এই কালজয়ী গজলের রানী ঠুমরির জননী তথা জলসাঘর চলচ্চিত্রের দুর্গাবাঈকে ভোলার নয় সিনেপ্রেমী সঙ্গীত রসিকের। বলাবাহুল্য সেই তেরো বছর বয়সী গান পাগল কিশোরীর কলকাতায় এসে গজলের রানী হয়ে ওঠার যাএাপথটা বেশ সুন্দর ছিল। তবেই তিনি সুরসম্রাজ্ঞী বেগম আখতার ওরফে চলচ্চিত্রের দুর্গাবাঈ।

হ্যালো! আপনার মতামত আমাদের কাছে মূল্যবান

%d bloggers like this: