তিনজনের প্রাণ বাঁচালেন দিল্লির ‘মৃত’ মহিলাই!

এখনই শেয়ার করুন

বিবিধ ডট ইন: একজন ৫৭ বছরের বৃদ্ধা গুরুতর ভাবে আহত হওয়ার ফলে, তাঁকে ব্রেন ডেড বলে ঘোষণা করা হয়। কিন্তু তাঁর মৃত্যুতে অন্য তিনজনের প্রাণ বাঁচে বলেই সূত্রের খবর।

গুরুতর অবস্থায় ওই বৃদ্ধাকে ২৮ মার্চ দ্বারকার আকাশ হসপিটালে আনা হয়। যেখানে তাঁকে ব্রেন ডেড বলে ঘোষণা করা হয়। তাঁর পরিবার বৃদ্ধার অঙ্গ দানের ব্যাপারে সম্মতি প্রকাশ করেন।

সঙ্গে থাকুন। ফলো করুন আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ:

সবরকম নিয়মকানুন মেনেই ২৯শে মার্চ ভোর ৫টায় ওই বৃদ্ধার অঙ্গ প্রতিস্থাপন শুরু হয়। তাঁর একটি কিডনি আকাশ হসপিটালেরই একজন রোগীকে দেওয়া হয়। অন্য কিডনি  অ্যাপোলো হাসপাতালের ৫২ বছরের এক ব্যক্তির শরীরে প্রতিস্থাপন করা হয়।

ওই বৃদ্ধার লিভার গুরগাঁও এর মেডেন্টা হাসপাতালের ৭১ বছরের এক বৃদ্ধের শরীরে প্রতিস্থাপন করা হয়েছে,কর্নিয়া শ্রফ আই সেন্টারের আই ব্যাঙ্কে সংরক্ষণ করা হয়েছে।

আকাশ হাসপাতালের ইউরোলজি এবং কিডনি ট্রান্সপ্ল‍্যান্ট বিভাগের অধিকর্তা ড. বিকাশ আগরওয়াল জানিয়েছেন যে এই প্রতিস্থাপন প্রক্রিয়া ২০ ঘন্টার মধ্যে সম্পন্ন করতে হয়।

তিনি আরও বলেছেন যে, ‘দেখা গেছে যে ১ শতাংশের থেকেও কম ব্রেন ডেড অঙ্গ গুলি প্রতিস্থাপন যোগ্য হয়।কারণ ভারতবর্ষে সংগঠিত পদ্ধতির অভাব। এর প্রধান কারণ হল সচেতনতার অভাব, যে অঙ্গদানের ফলে অনেকের জীবন বাঁচানো যেতে পারে।’

লিখেছেন সোহম হাটুয়া


এখনই শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *